অভিমানী কে -সুদীপা বিশ্বাস।

অভিমানী কে
-সুদীপা বিশ্বাস


পিছন ফিরে তাকাইনি সে
থামে নি ডাক শুনে
অন্ধকারে হারিয়ে গেলো
নিরব অভিমানে ।
কি আর দিতাম তার চরণে
কি আর আছে বল
দিয়ে গেলাম কেবল ব্যাথা
দুই নয়নের জল।
পাইনি খবর ,দেয়নি খবর
চাইনি নিতে খোঁজ
সজল আঁখি স্বপ্নে দেখি
জেগে উঠি রোজ।
দেখিস যদি দূর পাহাড়ে
অচিন কোনো গ্রামে
বলিস তাকে ‘ক্ষমা ‘দিতে
নতুন সবুজ খামে।
কেবল বলিস মাথায় দিতে
অভিশাপের ঝড়
কাঁটায় কাঁটায় ছিন্ন হয়ে
জ্বলি অতপরঃ..
হয়তো তাতে শেষ হবে তার
অভিমানের রেশ,
আমি থাকি ঝড় বাদলে
এই তো আছি বেশ ।