মনের ভাইরাস দূর করতে হবে আগে – সাইফুল এইচ সরকার

মানুষ তার মানবিকতার সীমানা অতিক্রম করেছে। আমরা মানুষ, সৃষ্টির সেরা জীব। আমরা প্রকৃতিরও সন্তান। তা সত্ত্বেও প্রকৃতিকে আমরা ধ্বংস করেছি। নির্বিকারে বন উজাড় করেছি। এরই ফলে অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলে কোটি গাছ ছাই হয়ে গেছে, লাখো বন্য প্রাণী মারা গেছে। আমাদের লোভ আর হঠকারিতায় বহু প্রাণী বিলুপ্ত হয়েছে। যে প্রকৃতির মধ্যে আমরা বাস করি তার ভারসাম্য রক্ষার কথা মোটেও ভাবিনি। সবকিছুকে আমাদের লালসার শিকার করেছি। প্রকৃতিকে কোণঠাসা করেছি। কিন্তু আমরা নিজেরাও তো এই প্রকৃতির ভেতরেই আছি।

সেই প্রকৃতির প্রতিশোধ আমাদের গায়েই তো লাগবে বেশি। সেটাই এখন হচ্ছে। আমরা পারমাণবিক বোমা বানিয়েছি। অস্ত্রশস্ত্রে কত কত দেশ তছনছ করে দিয়েছি। এখন একটা অণুজীবের বিরুদ্ধে এখন কেমন অসহায় হয়ে পড়েছি আমরা। তবে সব খারাপেরই একটা ভালো দিক আছে বলে আমি বিশ্বাস করি।এই ভাইরাসের প্রকোপে মানববিদ্বেষী কূটনীতি মনে হচ্ছে কিছুদিনের জন্য স্তব্ধ হয়ে আছে। সব দেশ এখন একটা ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচার লড়াইয়ে ব্যস্ত। এ এক অদ্ভুত বৈপরীত্য। এবার যদি আমাদের বোধোদয় হয়। এখন যদি আমরা আরও একটু প্রকৃতিবান্ধব হই, প্রাণীবান্ধব হই। এই সময়টা পার হলে পুরো মানবজাতির এ ব্যাপারে নতুন উপলব্ধি আসা উচিত।