মন খারাপের দিনে- ফারহানা কলি

24862537_10214430243249238_8972225274862309661_n

 ….
মুষল ধারে যখন বৃষ্টি হয় ,
তাবৎ জিনিস বাদ দিয়ে ,তখন সেই পুরনো ঝুল বারান্দাটা এসে মনের উপর জোওওর.. খবরদারি করে ।

কেমন করে যেন তখন ,
অনাবৃষ্টিতেও মনে মনে খুব করে ভিজে যাই ।

তোমার চোখ দু’টো তখন আমার চোখে ভাসতে থাকে । ঠান্ডা লাগবে বলে যে বকা শুনতে হতো , সেই কথা তখন আর মনে থাকে না । বকাবকিতে মনে হয় আমরা বেহায়া হয়ে গেছি … তুমি বলতে আর আমি শুনতে ।

সকালের মেঘলা আকাশ এখন ঝিরিঝিরি বৃষ্টি আর আমার বিরক্তির অন্য রকম কারন হলো তোমার দেয়া ছাতা খানি।

জানতেই আমার শখ তাহলে অপছন্দটা কেন চড়াও বুঝি না ।

আমার ছাতা হাতে …নিবিড় ভাবে আনমনে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি মাথায় নিয়ে হেঁটে যাওয়া দেখে অনেকেই অবাক হয় , বুঝি …হয়ত তোমার মতোই ভাবে আধ পাগলী।

হুড তোলা রিক্সায় নীল রঙের প্লাস্টিকের ভেতর যখন , গাদাগাদি করে তুমি আমার পাশ ঘেঁষে বসতে , আলতো করে জড়িয়ে রাখতে এক হাতে আমাকে ।
আমার কিন্তু দারুন ভালো লাগতো ।

বলিনি কখনও, তুমি লজ্জা পেতে ।

কেমন যেনো উল্টো ছিল আমাদের দিনগুলো , হিসেবের বাইরের কোন সংখ্যা।

ক্যালকুলাসের রাফ খাতা ঘেঁটে একবার বলে ছিলে, “ এই ছাতা তোমার মাথায় যে কি করে ধরে , আমি বুঝি না বরং চলো আজ শেষের কবিতা পড়ি ।”

হুমম….পড়ে ছিলাম শেষের কবিতা। হয়েই ছিলাম তোমার পছন্দের সব কিছু ।তবুও বৃত্তের ব্যাসার্ধ ঠেলে বের হতে পারিনি।

আজো সেই তোমাকে ঘিরেই কল্পোকথার গল্প বুনি ।
মনে মনে আওড়ে যাই .. এক সাথে চলা অনেকটা পথ….।

print

Hits: 6

কমেন্ট করুন