এক ফোঁটা জল -কোহিনূর আক্তার ।

এক ফোঁটা জল
-কোহিনূর আক্তার


এক ফোঁটা জল দেবে আমায় ?
এক ফোঁটা জল!
সাগর বললো এ তো আমার অঙ্গ।
দীর্ঘ নিঃশ্বাসে দৃষ্টিচরে আকাশ এলো ,
আকাশকে বললাম ,এক ফোঁটা জল দেবে ?
আকাশ বললো ,এ আমার রূপ ।
হৃদয়ের গভীরতরা ছুঁয়ে দিলাম বঞ্চনা করে।
ওহে নীল আকাশ জল পাত্র যে তোমারই দ্বারে !
সন্ধ্যা তারা বলছে,মহা জগতকে করে দাও
ধ্বংস বিলীন।
জল শূন্য শুকিয়ে যাওয়া তরুর আসা তীর্থেও
হাহাকারে নিঠুর অসহায়ে মন পাখিও মলিন ।
জল ,জল কে দিবে এক ফোঁটা জল !
রূপহীন জংয়ে ফুটো হয়েছে হৃদয়ের সব কল।
পাহাড় গাছে বসে আছে বুলি ঝড়া এক পাখি ।
সে বলছে ,দিতে চাই সমুদ্র অশ্রু ,কিন্তু অন্ধ যে
এই দু আঁখি।
এক ফোঁটা জল দিবে আমায় আঁকা বাঁকা নদীর তরে ।
নদীও যায় নীরব গতিতে ,সংশয় নেই মৃদু হাওরে ।
চাওয়া পাওয়ার মাঝের অদৃশ্য বায়ুতে জল ভাসে !
উচ্চাকাঙ্ক্ষী মন ঘৃণার তিরস্কারে হাসে ।
এক ফোঁটা জল দিবে আমায় ?
সব যেনো নষ্ট, কলঙ্ক ,দুর্গন্ধ রূপে বসে আছে
গগন টোলা কলে ।
বুকের দীর্ঘল পাত্র ভরিলো আঁখি অশ্রু জলে ।
একফোঁটা জল আর নিবো না !
আঁখি অশ্রুতে ভিজছে নিরাশার জমিন
তাতেই কেনো হবে না !