একটি আসবক এর গল্প ।

আসুন সমাজ বদল করি। সংক্ষেপে যদি বলি আসবক । নামটার মাঝেই যেন কেমন একটা ভালোবাসা লুকায়িত। খুব বেশি বড় মাপের সংগঠন নয়। একক ব্যক্তি থেকেই যার পথচলা। নির্দিষ্ট একটি গ্রামের একদল যুবক থেকে প্রকাশ পেলেও পরবর্তী সময়ে সেটি ইউনিয়ন পর্যায়ে পথচলতে শুরু করে। তখন ও খুব বেশি একটা মাথা নাড়া দিয়ে উঠেনি সংগঠনটি।
উদ্যোক্তা একজন থাকলেও আসবকের প্রতিটি সদস্য ছিলো সক্রিয়। প্রতিটি সদস্য যেন আসবকের জন্য নিবেদিত প্রাণ ছিলো। আসবক সংগঠনটির কিছু নিয়মাবলি ছিলো। এই সংগঠনে সবাই সদস্য হতে পারতেন। আসবকের নির্দিষ্ট সদস্য ফরম ছিলো।
আসবক একটি অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন।
আসবক বাল্যবিবাহ ও যৌতুক সম্পর্কে গণসচেতনা সৃষ্টি করে।
ইভটিজিং মুক্ত সমাজ গড়া।
অসহায় ও দুস্থদের পাশেে দাড়ানো।
সংগঠনের সংগীত :
মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না ও বন্ধু       –ভূপেন হাজারিকা।
সদস্য হবার যোগ্যতা:
১। যেকোন বয়সী মানুষ সদস্য হতে পারবে।
২। আমাদের উদ্দেশ্যগুলো যিনি পালন- লালন করবে তিনিই আমাদের আসবকের সদস্য।
৩। এক কপি পিপি সাইজ ছবি সহ একটা সদস্য ফরম পূরন করতে হবে।
৪ । কমপক্ষে দৈনিক একটি ভালো কাজ এবং একটি মিথ্যা কম বলতে হবে।
এই নিয়মগুলো নিয়েই আসবক মাথা নাড়া দিয়ে দাড়িয়েছিলো। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে আসবকের সদস্যরা এগিয়ে এসেছে নিঃস্বার্থে। ২১ শে ফেব্রুয়ারিতে আসবকের একটি কার্যক্রম চোখে পড়ার মতো ছিলো। সে সময়টাতে আসবকের প্রতিটি সদস্য সবে মাত্র হাইস্কুলের গন্ডি পেরিয়েছিলো। কৈশরের প্রথম প্রেম ছিলো তাদের আসবক। বিভিন্ন ধরনের সামাজিক লিফলেট বিতরণ থেকে শুরু করে অন্যায় কাজে মানুষদের বাঁধা দেওয়া এবং ভাল কাজে এগিয়ে আসা ছিলো আসবকের মূল ভূমিকা। ছাত্রজীবনের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে আসবকের কার্যক্রমগুলোর জন্য দিয়ে দেওয়া হতো। এই টাকা বিলিয়ে দেওয়ার মাঝেও একটা স্বর্গের সুখ অনুভব করা যেত। ছোট মনে আসবক বাসা বেঁধেছিলো খুব বড় আকারে। অনেক স্বপ্ন ছিলো আসবক নিয়ে।
একটা পর্যায়ে আসবক কেমন যেন অচেনা হয়ে যেতে থাকলো। আসবকের নেতৃত্ব শূন্যতা দেখা দিতে শুরু করলো। আসবকের প্রতিটি সদস্য যেন আস্তে করে চুপসে গেলো। আসবক রয়ে গেলো তার প্রতিটি সদস্য এখনো বিদ্যমান রয়েছে শুধু আসবকের কার্যক্রম গুলোই যেন থেমে গেছে। একটি সংগঠন চুপসে গেলো শুধু নেতৃত্বের অভাবে। এখন একটায় প্রশ্ন আসবক কি পারবে ঘুরে দাঁড়াতে? আসবক কি তার আগের নেতৃত্বে ফিরে যেতে পারবে ?