সফল স্বার্থক ক্যারিয়ার- ওয়ালিদুর রহমান বিদ্যুত।

বস হিসেবে যদি ”জ্বি হুজুর” গোছের কর্মীদের আপনার কাছে যোগ্য ও উপযুক্ত মনে হয়, অথচ স্মার্ট ও দক্ষ হওয়া স্বত্বেও আপনাকে “জ্বি হুজুর” না করায় আপনার কাছে কাউকে ”ফাউল” মনে হয়, তবে আপনি নিজের কতটা করছেন-তা পরিষ্কার না হলেও, প্রতিষ্ঠানের সর্বনাশ করছেন তা নিশ্চিত।
আর আপনি যদি প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি করেন, আপনার ক্ষতিও কেউ ঠেকাতে পারবে না। ব্যক্তিগতভাবে মানুষের স্বাভাবিক চরিত্রের অংশ হিসেবে আমরা প্রশংসা ও তোষামোদ পছন্দ করি।
আমি প্রচুর ঘটনাতে দেখেছি, অধঃস্তন কর্মী, এমনকি অন্য বিভাগের কনিষ্ঠ কর্মী বড় স্যারকে স্যার স্যার হুজুর হুজুর না করলে, মাঠে ময়দানে তার ইভ্যালুয়েশনে নেগেটিভ মন্তব্য বা প্রভাব বিস্তার করেন কিছু কিছু নামপ্রত্যাশী বস।
কিন্তু একই সাথে তোষামোদীত্ব প্রতিষ্ঠানে যোগ্য লোকের অবমূল্যায়ন এবং পরিণতিতে তাদের বিতাড়নের রাস্তা খুলে দেয়। আর বিভাগের যোগ্য লোক চলে গেলে আপনার ক্যারিয়ারও শুলে চড়ার সম্ভাবনা থাকে। বস হিসেবে গণতান্ত্রীক, উদার, নিরপেক্ষ, ভিশনারী, র‌্যাশনাল, দূরদৃষ্টিসম্পন্ন, নন-জাজমেন্টাল, নন-ইজম হোন।
জনপ্রিয় বস হবার চেয়ে যোগ্য বস আগে হোন। *ক্যারিয়ার নিয়ে এই কথাগুলো কোনো সার্বজনীন, বিশেষজ্ঞ মতামত বা প্রচলিত ক্যারিয়ার টিপস নয়। লিপিকারের নিজস্ব মতামত বলতে পারেন।
অনুসরন করার আগে যাঁচাই করে নিন। অন্ধ অনুসরন বুদ্ধিমত্তার পরিচয় নয়।
hashtagসুপ্রভাতবার্তা hashtagসফলস্বার্থকক্যারিয়ার hashtagcareeraholic

কমেন্ট করুন