রিদমিক কি বোর্ডের জনক কে ?

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে বাংলা ভাষাকে জনপ্রিয় করতে বাংলা লেখার সফটওয়্যার রিদমিক কিবোর্ড (Ridmik Keyboard) অ্যাপস উদ্ভাবনের মাধ্যমে অনলাইনে যিনি যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছেন তিনি হচ্ছেন বুয়েটের কম্পিউটার প্রকৌশলের তরুণ ছাত্র শামীম হাসনাত।
যিনি আত্মপ্রচার না করেই বাংলা ভাষার প্রসারে মোবাইল দ্বারা সহজে বাংলা লেখায় তরুণ সমাজকে অনুপ্রাণিত করে চলেছেন তার সৃষ্টি রিদ্মিক কিবোর্ড দ্বারা।

অ্যানড্রয়েড সেট থেকে গুগল প্লে স্টোরে (play.google.com) গিয়ে Ridmik Keyboard লিখে সার্চ দিলেই পাওয়া যাবে। সেখান থেকে ইনস্টল করুন। এরপর সেটের সেটিংস অপশনে যান। ‘ল্যাংগুয়েজ ও কি-বোর্ড’ অংশে গিয়ে রিদমিক কি-বোর্ড সচল (Enable) করুন। এরপর মেসেজ কিংবা লেখালেখি বা ইনপুটের যেকোনো ফিল্ডে গিয়ে কিছু টাইপ করতে গেলে ‘ইনপুট মেথড’-এ গিয়ে কি-বোর্ড বাংলা (রিদমিক কি-বোর্ড) কিংবা ইংরেজি (ইন্টারন্যাশনাল কি-বোর্ড) বাছাই করা যাবে।
অ্যাপটিতে লেখার ধরনে ভিন্নতা আনতে আছে কয়েকটি ডিজাইনের কি-বোর্ড থিম। সেটিংসে গিয়ে ওয়ার্ড সাজেশন ও অটোকমপ্লিট, ক্যাপিটালাইজেশন সচল করা যাবে। যাতে কোনো ভুল শব্দ লিখলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঠিক হয়। চাইলে কি-বোর্ডে প্রতিটি কি চাপলে ভাইব্রেশনও পাওয়া যাবে।

রিদমিক কি-বোর্ডের লে-আউট তিন ধরনের—ডিফল্ট ইংরেজি, ফোনেটিক বাংলা ও ইউনিজয়। স্পেস বারে প্রেস করে ডান দিকে বা বাম দিকে হালকা টানলে (সোয়াপ) এসব লে-আউটের মধ্যে পছন্দেরটি বাছাই করা যাবে। ‘

আসুন জেনে আসি রিদমিক কি বোর্ডের জনক সম্পর্কে ঃ
Hello there! I’m Shamim Hasnath, currently studying, with the hope that It’ll finish soon, in Bangladesh University of Engineering and Technology, Dhaka, Bangladesh in L-4 T-2 in the Department of Computer Science and Engineering. I passed HSC from K. B. College, Mymensingh in 2010.