ভালো আছি, -কোহিনূর আক্তার।

ভালো আছি,
-কোহিনূর আক্তার
আছি তো আমি অনেক রঙে আঁকা
ঐ নীলাদ্রির মতো জীবনের আকাশে দাড়িয়ে ,
আমি আমাকে সময় দেয়, চিনি ছাড়া লাল চা ,
আঙুলের ফাঁকে মোবাইল ফোনটা চার্জে লাগিয়ে
চিত্তের বর্ণ গুলো সাদা পাতায় আঁকি,
সাক্ষী করে রাখি জীবন-কর্মচারীকে ।
খুব বেশী প্রশ্ন করি আমার অন্তকে, আচ্ছা বলোতো
কোন রঙে তোমার পরিচয় ?
অনেক দূরে দৃষ্টির তাঁরা , আর সব ফাঁকা ,সব
যাকে বলে ভাগ্য বালীচর ।
কখন যে ভালো থাকা সুখ পাখিটাকে ঢেউয়ে মুছে নেয়।
ঠিক তখনই ধাক্কা দেয় কষ্টের রূপসী প্রণয়িনী ।
বেশ আছি তো-
দায়িত্বের দেনা শোধ করে ।
বাকি রয়ে গেলো আমারই আত্মজের সাদা খাতা ।
আমি তো কোনো মনো-দ্বারের সন্ন্যাসী নই
তাই তো কোনো ফুল পাইনি পূজার নিমন্ত্রণে ।
দূষিত বায়ুর মতো ভেসে বেড়ায় হাওড়ে ,
ইতিহাস নাকি মনোহরে বাধ্য নয় ,
তাই তো এক চিলতে হাসি ঠোঁটের কোণে বসে ।
মহা-শূন্যে প্রেম বুনে ছিলাম,
কিন্তু প্রেম-যজ্ঞের রাধিকা সেও তুচ্ছ নয় বটে।
আছি তো, বাঙালি কবি অরুণ মিত্রের কাব্য দেবী হয়ে,
তন্ত্রে যদি মন্ত্র নেই তবে সে ভরসাহীন যজ্ঞ-সালা !
তন্দ্রাময় সুখে ভালো আছি ।
২৯/১১/১৯

কমেন্ট করুন