একগুচ্ছ সুদীপা – সুদীপা বিশ্বাস।

“শোন অভ্যেস বলে কিছু হয়না এ পৃথিবীতে
পাল্টে ফেলাই বেচেঁ থাকা
আর একশো বছর আমি বাঁচব ই, জেনে রাখ,
হোক না এ পথঘাট ফাঁকা।”
একটা ফোন ,একটা জিজ্ঞাসা ,একটা ভরসা
একটু ব্যস্ততা
একটু অবহেলা
একটু অভিমান, একটু নীরবতা
একটা ভাঙন ।
শ্রাবণ দিল ধুয়ে নকল রং, তোমার দেখার ইচ্ছে তবু বাকি?
বর্ণহীন বকুল পাবে শুধু, চাইলে দেব
তৃষিত দুই আঁখি।
আদরের অক্ষর অনুভূতি মেখে অবয়ব নিলে অবেলায়
আমি কাগজের নৌকায় পাঠবো ভিজিয়ে
তোমার পুরনো ঠিকানায়।।
তুমি মুখ ঘুরালে বলে মেঘলা আকাশ,
তবুও সেদিন বৃষ্টি এলো না।
তুমি নিজের মতোই সবটা বুঝে নিলে
হয়তো তাই অতল মনের খবর পেলে না।
ভাগ্য রথের আটকে যখন চাকা
আমি না হয় কর্ণ হয়েই থাকি,
তুই লিখিস অর্জুনের গাঁথা
আমি পরাজয়ের গ্লানি টুকুই মাখি।
জীবন ,তুমি আরো কিছু চাও
নিঃস্ব হতে তো এখনও বাকি,
প্রেমিক, তুমি কলঙ্ক দাও আরো
শেষের বেলায় আঁচল পেতে রাখি।
এতবার হেরে গেছি আমার আর হারতে ভয় নেই,
আমি আবার ও কাল দাঁড়াবো জীবনের মুখোমুখি
হয়তো নতুন করে হারতে।
হাজার স্বপ্নের মৃতদেহের ওপর
আমি এক থালা ভাত বেড়ে রাখি,
তুমি যাকে ঘর বলো
আমি এখন তাকে
কম্প্রোমাইজ নামে ডাকি।
১০
বদলে যাচ্ছে রোজকার পৃথিবী
পাল্টে যাচ্ছে চেনা মানুষ,চেনা সম্পর্ক
রঙ বদলাচ্ছে তোমার শহর
সাজছে নতুন আলোর সাজে।
print

কমেন্ট করুন